ভাষা সৈনিক গোলাম মাহবুবের মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ভাষা সৈনিক কাজী গোলাম মাহবুব।-বরিশাল নিউজবরিশাল নিউজ॥ সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির আহবায়ক কাজী গোলাম মাহবুবের দশম মৃত্যুবার্ষিকী আজ শনিবার।
২০০৬ সালের এই দিনে অকুতোভয় এ ভাষা সৈনিক ঢাকার ধানমন্ডির নিজ বাসায় মারা যান।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রাবস্থায় ১৯৪৮ সালে ভাষা আন্দোলনে তিনি সক্রিয় অংশগ্রহন করেন। ওই বছরের ১১ মার্চ রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে অনুষ্ঠিত হরতাল কর্মসূচীতে পিকেটিং করতে গিয়ে তিনি গ্রেপ্তার হয়ে কারাবরণ করেন। কারাভোগের পর জামিনে মুক্ত হন ১৯৫২ সালের ২৭ জানুয়ারি।
তৎকালীন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী খাজা নাজিমদ্দিন উর্দুকে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষার ঘোষনা দেন পল্টনে।
এরপর নতুন করে ভাষা আন্দোলন গড়ে তোলার উদ্দেশ্যে কাজী গোলাম মাহবুব সর্বদলীয় সভার আয়োজন করেন। ওই সভায় তাকে সর্বদলীয় রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক করা হয়।
১৯২৭ সালের ২৩ ডিসেম্বর লাখেরাজ কসবা গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহন করেন কাজী গোলাম মাহবুব ওরফে ছরু কাজী। তিনি ওই গ্রামের কাজী আব্দুল মাজেদের বড় ছেলে।
গোলাম মাহবুবের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে তার জন্মভূমি বরিশালের গৌরনদী উপজেলার লাখেরাজ কসবা ও ঢাকার বাসভবনে দিনভর কোরানখানী, দোয়া অনুষ্ঠান, স্মরণসভা ও দুপুরে মধ্যাহ্নভোজের আয়োজন করা হয়েছে।


এ বিভাগের আরো খবর...
বিএনপি অফিসে তালা দিলো যুবদল বিএনপি অফিসে তালা দিলো যুবদল
বরিশালে আর্ন্তজাতিক রেটিং দাবা প্রতিযোগিতা শুরু বরিশালে আর্ন্তজাতিক রেটিং দাবা প্রতিযোগিতা শুরু
নেচে-গেয়ে নৃত্য দিবস নেচে-গেয়ে নৃত্য দিবস
বর্ণাঢ্য আয়োজন বিশ্ব ভেটেরিনারি দিবস উদযাপন বর্ণাঢ্য আয়োজন বিশ্ব ভেটেরিনারি দিবস উদযাপন
‘বাংলাবিদ হও’ ‘বাংলাবিদ হও’
পেশাগত স্বাস্থ্য ও সেইফটি দিবস পালন পেশাগত স্বাস্থ্য ও সেইফটি দিবস পালন
বরিশালে আইনগত সহায়তা দিবস পালন বরিশালে আইনগত সহায়তা দিবস পালন
প্রেমিকের মায়ের বকুনিতে প্রেমিকার আত্মহত্যা প্রেমিকের মায়ের বকুনিতে প্রেমিকার আত্মহত্যা
বিদেশী রিভলবারসহ আটক ১ বিদেশী রিভলবারসহ আটক ১
সাতুরিয়ায় শের-ই-বাংলা  মৃত্যু বার্ষিকী পালন সাতুরিয়ায় শের-ই-বাংলা মৃত্যু বার্ষিকী পালন

ভাষা সৈনিক গোলাম মাহবুবের মৃত্যুবার্ষিকী আজ
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet


পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)