পাহাড় ধসে মৃত্যু ১২৬

বরিশাল নিউজ ডেস্ক।। চট্টগ্রাম, রাঙামাটি ও বান্দরবানের বিভিন্ন স্থানে পাহাড়ধসে অন্তত ১২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বড় বিপর্যয় ঘটেছে রাঙামাটিতে। সেখানে পাহাড়ধসে মারা গেছেন ৯৮ জন। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন সেনাবাহিনীর দুই কর্মকর্তা ও দুই সৈনিক। পাহাড়ধসে বন্ধ হয়ে যাওয়া রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়ক চালু করতে গিয়ে প্রাণ হারান তাঁরা।
পাহার ধসে মৃত্যু ১২৬
এ ছাড়া চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় ২১ জন ও চন্দনাইশ উপজেলায় ৩ জন এবং বান্দরবানে পাহাড়ধসে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার মধ্যরাত ও গতকাল মঙ্গলবার ভোরে পাহাড়ধসে তাঁরা মারা যান। প্রাণহানি আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা। ফায়ার সার্ভিস ও জেলা প্রশাসন গতকাল রাত আটটা পর্যন্ত উদ্ধার তৎপরতা চালিয়েছে। দুর্গম যোগাযোগব্যবস্থা ও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে গত রাত আটটায় উদ্ধার কার্যক্রম স্থগিত করা হয়।
২০০৭ সালের ১১ জুন চট্টগ্রাম নগরের বিভিন্ন স্থানে পাহাড়ধসে ১২৭ জন নিহত হয়েছিল।-সূত্র প্রথম আলো


এ বিভাগের আরো খবর...
মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বরিশালে বিএনপি সমাবেশ মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বরিশালে বিএনপি সমাবেশ
রাশিয়ায় সন্ত্রাসী হামলার ঠেকিয়ে দিলো যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ায় সন্ত্রাসী হামলার ঠেকিয়ে দিলো যুক্তরাষ্ট্র
টি-টেন লিগে সাকিবের কেরালা কিংস চ্যাম্পিয়ন টি-টেন লিগে সাকিবের কেরালা কিংস চ্যাম্পিয়ন
আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস আজ আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস আজ
বাকেরগঞ্জে নদী থেকে নিখোঁজ দিনমজুরের মরদেহ উদ্ধার বাকেরগঞ্জে নদী থেকে নিখোঁজ দিনমজুরের মরদেহ উদ্ধার
নেপালকে উড়িয়ে দিয়ে শুরু বাংলাদেশের নেপালকে উড়িয়ে দিয়ে শুরু বাংলাদেশের
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিশ্চিতকরণে অনাবাসিক দূতদের সমর্থন রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিশ্চিতকরণে অনাবাসিক দূতদের সমর্থন
জনগণ স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিকে ভোটের মাধ্যমে চির বিদায় করবে - প্রধানমন্ত্রী জনগণ স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিকে ভোটের মাধ্যমে চির বিদায় করবে - প্রধানমন্ত্রী
বরিশালে ব্যাটারী চালিত রিকসা শ্রমীকদের বিক্ষোভ প্রতিবাদ সমাবেশ বরিশালে ব্যাটারী চালিত রিকসা শ্রমীকদের বিক্ষোভ প্রতিবাদ সমাবেশ
বাটনা গ্রামে লাঠি খেলায় হানাদারদের নৃসংসতা বাটনা গ্রামে লাঠি খেলায় হানাদারদের নৃসংসতা

পাহাড় ধসে মৃত্যু ১২৬
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)