ছোট মিনারের ছোট বেদি, ভরে গেছে ফুলে ফুলে

নিজেদের তৈরি শহীদ মিনার সামনে নিয়ে হাস্যোজ্জ্বল জিদনী ও আফসারা-বরিশাল নিউজ

মিলন কর্মকার রাজু, কলাপাড়া।। ‘খুব ইচ্ছে ছিলো বন্ধুগো লগে যাইয়া শহীদ মিনারে ফুল দিমু। কিন্তু আমাগো স্কুলেতো শহীদ মিনার নাই। আর আমরা গ্রামে থাহি। ছোড মানুষ। আমরা তো কলাপাড়া যাইয়া ফুল দেতে পারমু না। তাই আমরা নিজেরাই এই শহীদ মিনার করছি। দ্যাহেন না ফুল দিয়া কি সুন্দর সাজাইছি’।
এ কথাগুলো প্রায় এক নি:শ্বাসেই বললো মনিং ষ্টার প্রি-ক্যাডেট স্কুল নাচনাপাড়া শাখার তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী জিদনী।
কলাপাড়ার চাকামইয়া ইউনিয়নের নিশানবাড়িয়া গ্রামের নিজ বাড়ির উঠানের এক কোনে ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানাতে তারা তৈরি করে এই শহীদ মিনার। ছোট বোন আফসারাকে নিয়ে প্রথমে শহীদ মিনার নির্মান শুরু করলেও পরে তাদের সাথে যোগ দেয় খেলার সাথী লাইলী, রিফাত, অনিক, মার্জিয়া ও নাইমা।
কলাগাছের পাতার ডগা দিয়ে তৈরি করে তিনটি স্তম্ব। মাটি দিয়ে লিপে সেই শহীদ মিনারের বেদি সাজিয়ে তোলে বাগান থেকে নিয়ে আসা ফুল দিয়ে। বড়দের মতো দাড়িয়ে শহীদদের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়াও করে তারা সাতজন।
শিশুদের এই ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানাতে দেখে বড়রাও তাদের সাথে যোগ দেয়। নিজেদের তৈরি শহীদ মিনারের পিছে দাড়িয়ে ছবিতে হাস্যোজ্জল জিদনী ও আফসারা। তবে তাদের প্রশ্ন স্কুলে ও মাদ্রাসায় কেন নেই শহীদ মিনার।


এ বিভাগের আরো খবর...
হিজলায় বিএনপি নেতা ফরহাদের মোটর সাইকেল বহরে হামলা হিজলায় বিএনপি নেতা ফরহাদের মোটর সাইকেল বহরে হামলা
সাংবাদিক লিটন বাশারের মৃত্যুতে বিভিন্ন সংগঠনের শোক সাংবাদিক লিটন বাশারের মৃত্যুতে বিভিন্ন সংগঠনের শোক
লিটন বাশারের মৃত্যুতে প্রেসক্লাবের শোক কর্মসূচি লিটন বাশারের মৃত্যুতে প্রেসক্লাবের শোক কর্মসূচি
লিটন বাশারের মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন লিটন বাশারের মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন
সাংবাদিক লিটন বাশার চলে গেলেন সাংবাদিক লিটন বাশার চলে গেলেন
আল্লাহর কাছে প্রধানমন্ত্রীর শুকরিয়া আল্লাহর কাছে প্রধানমন্ত্রীর শুকরিয়া
ঝালকাঠিতে ৪শতাধিক স্থানে ঈদ জামাত ঝালকাঠিতে ৪শতাধিক স্থানে ঈদ জামাত
বরিশালে ঈদ জামাতে মানুষের সুস্থতা ও দেশের মঙ্গল কামনা বরিশালে ঈদ জামাতে মানুষের সুস্থতা ও দেশের মঙ্গল কামনা
বরিশালে কখন কোথায় ঈদ জামাত বরিশালে কখন কোথায় ঈদ জামাত
শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে, সোমবার ঈদ শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে, সোমবার ঈদ

ছোট মিনারের ছোট বেদি, ভরে গেছে ফুলে ফুলে
(সংবাদটি ভালো লাগলে কিংবা গুরুত্ত্বপূর্ণ মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।)
tweet

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)