৭ দিন ধরে পানি পাচ্ছেনা শিক্ষার্থীরা।। বিক্ষোভ-হামলা

,

স্টাফ রিপোর্টার।। বরিশাল ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির শিক্ষার্থীরা ১৪ দফা দাবীতে সকালে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করে। এ সময় তাদের ইটপাটকেল নিক্ষেপে কয়েকটি জানালার গ্লাস ভাংচুর হয়। পরে কোতয়ালী পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। ঘটনার পর ডেপুটি সিভিল সার্জন এক সপ্তাহের জন্য প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ ও হলত্যাগের নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু কিছক্ষনের মধ্যেই তা আবার প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। অধ্যক্ষ জানান, ৮ মার্চ পরীক্ষার কারনে ছাত্রছাত্রীদের অনুরোধেই তা প্রত্যাহার করা হয়।
এক সপ্তাহ ধরে পানি না পাওয়ার কারনে ক্ষোভ থেকে বিক্ষোভ বলে বলে জানা গেছে। হোস্টেল সুপার আব্দুস ছাত্তার পানি সমস্যার কথা স্বীকার করে বলেন বৈদ্যুতিক ক্রটির কারনে ছাত্রবাসে পানি সরবরাহ প্রায় এক সপ্তাহ ধরে বন্ধ রয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য অধ্যক্ষকে জানানো হয়েছে।
১৬ কোটি ২০ লাখ টাকা ব্যয় করে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে চার তলাবিশিষ্ট একাডেমিক ভবন, পাঁচ তলাবিশিষ্ট একটি ছাত্রাবাস, চার তলাবিশিষ্ট একটি ছাত্রীনিবাস, অধ্যক্ষ ভবন ও শিক্ষকদের আবাসনব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়।
শিক্ষার্থীরা জানান, ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজিতে ২০১১ সালের ১৯ জুন থেকে পাঠদান শুরু হলেও অবকাঠামোর বাইরে কোনো আসবাব বা গবেষণাগারের কোনো উপকরণ দেওয়া হয়নি। ধার করা ৬জন শিক্ষক আর কয়েকজন কর্মচারী দিয়ে চলছে কার্যক্রম।
অধ্যক্ষের দায়িত্বে থাকা বরিশাল জেলার সিভিল সার্জন ডা. এটিএম মিজানুর রহমান বলেন, শিক্ষার্থীরা ন্যায্য দাবী তুলেছে । স্বাস’্য মন্ত্রণালয়কে লিখিতভাবে সব সমস্যার কথা জানানো হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সমস্যার সমাধান করা হবে। তিনি বিকেল ৪ টায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে শিক্ষার্থীদের সমস্যা দ্রুত সমাধানের আশ্বাস দেন।

পাঠকের মন্তব্য


মন্তব্য প্রদান করতে লগইন করুন। আমাদের সাইটে আপনার একাউন্ট না থাকলে এখানে নিবন্ধন করুন।

পাতার শুরুতে