নেতাদের পকেটে ৩৫%

,

স্টাফ রিপোর্টার।। কর্মসৃজন কর্মসূচির ৩৫% অর্থ নেতাদের পকেটে যাচ্ছে বলে গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। মাঠে কাজ না করে শুধুমাত্র কাগজে কলমে শ্রমিক দেখিয়ে ব্যাংক থেকে এ টাকা উত্তোলন করা হয়।
ত্রান শাখা বলছে ‘এর সাথে রাজনীতিবিদরা জড়িত, আমাদের কিছু করার নেই। নেতাদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেনা কেউ’। তারা আরও বলেন ৩৫% হিসেবে শ্রমিক নিয়োগ দেয়া হয়, যারা কাজ করেনা।
আত্মসাৎকৃত অর্থের ভাগ প্রত্যেকটি দপ্তরে দিতে হয় বলে জানান ইউনিয়ন পরিষদের নেতারা। ভাগবাটোয়ারায় সমস্যা দেখা দিলেই তা প্রকাশ হয়ে পরে জানিয়ে তারা বলেন ভাগিদারদের মধ্যে সাংবাদিকও আছেন।
গত বুধবার বাবুগঞ্জ উপজেলার আগরপুর ইউনিয়নে প্রকল্প ভিজিটে গিয়েছিলেন জেলা ত্রান কর্মকর্তা চিত্তরঞ্জন অধিকারী। তিনি জানান সেখানে ৪৩ জন শ্রমিকের কাজ করার কতা ছিল সেদিন। কিন্তু শ্রমিক পাওয়া গেছে ২৮ জন। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে গতকাল রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে জানান তিনি।
জেলা ত্রান কর্মকর্তা আরও বলেন জেলা প্রশাসকসহ তিনি মাঝে মাঝেই প্রকল্প ভিজিটে যান। কাজ ঠিকমতো না হলে বিল আটকে দেওয়া হয়।
বরিশাল সদর উপজেলার চরবাড়িয়া ইউনিয়নে গত ১০মে শ্রমিকদের ব্যাংকে যেতে না দিয়ে চেয়ারম্যান এবং ইউপি সদস্যরা টাকা উত্তোলন করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। সেখানে ৬৮৬ জন শ্রমিকের মধ্যে কাজ করেছিল মাত্র ৩শ’ জন শ্রমিক।
এ ঘটনার পর গত সপ্তাহের বৃহস্পতিবার ফের বিল উত্তোলনের চেষ্টা করলে তা বন্ধ করে দেন দায়িত্বরত পিআইও মাইনুল ইসলাম। চরবাড়িয়া ইউনিয়নের ৩,৪ ও ৫নং ওয়ার্ডের কোন কাজ না হওয়ায় এ বিল বন্ধ করে দেয়া হয় বলে জানান তিনি। কর্মসৃজন কর্মসূচির অর্থ ভাগাভাগি নিয়ে সমপ্রতি ঐ ইউনিয়নের নেতাদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে।

পাঠকের মন্তব্য


মন্তব্য প্রদান করতে লগইন করুন। আমাদের সাইটে আপনার একাউন্ট না থাকলে এখানে নিবন্ধন করুন।

পাতার শুরুতে